ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়? সেরা 5 টি উপায়

ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়: সারাদিনে আমরা ফেসবুকে কত টাইম দিই তার কোনো হিসাব থাকে না। স্মার্টফোন যেখান থেকে এসেছে সেখান থেকে ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ ছাড়া মানুষ চলতে পারে না। ফেসবুক এখন এতটাই কমন হয়ে গেছে যে সবার কাছেই একের অধিক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। আর দিনের সবথেকে বেশি টাইম ফেসবুকেই কেটে যায়।

এর সব থেকে বড় উদাহরণ আমি নিজেই। আমিও আর সবার মত সারাদিনে ফেসবুকে প্রায় অনেকটাই সময় দিয়ে থাকি। আর এখন তো কোন কাজ করার সময় ফেসবুকে ফটো না দিলে সেই কাজটা যেন সম্পূর্ণ হয় না। আচ্ছা আপনাদের কি কখনো মনে হয়েছে যে, আমরা সারাদিন যে ফেসবুকের পিছনে সময় দিয়ে থাকি সেই ফেসবুক থেকে যদি কিছু টাকা আয় করা যায় তাহলে কেমন হয়? জানিনা এই কথাটা আপনাদের মনে এসেছে কিনা।

তবে আমার মনে অনেক দিন থেকেই একথাটা আসতো যে, কিভাবে ফেসবুক থেকে টাকা আয় করা যায়, কিভাবে হোয়াটসঅ্যাপ থেকে টাকা আয় করা যায়, টেলিগ্রাম থেকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়। এমনকি ইউটিউব থেকে কিভাবে আয় করা যায় তাও সব সময় মাথায় ঘুরতো।

আচ্ছা এবারে বলুন তো এই যে সারাদিন ফেসবুকের পিছনে এতটা সময় দেওয়া হচ্ছে সেগুলো কি কোন কাজে লাগছে? হ্যাঁ অনেকেই আছে যারা কাজের পারপাসে ফেসবুকে সময় দেয়। তবে বেশির ভাগটাই ফটো আপলোড, চ্যাটিং, লাইক, কমেন্ট এইসবেতেই সময় নষ্ট হয়। এবারে বলুন এই সময় নষ্ট করার ফাঁকে যদি ফেসবুক থেকে টাকা আয় করা যায় তাহলে কেমন হয়?

কথাটা শুনতে অন্যরকম লাগলেও, এটা সত্যিই সম্ভব। আপনি খুব সহজেই দিনের কিছু সময় দিয়ে শুধুমাত্র নিজের ফোন থেকে আর ফেসবুক ব্যবহার করে ভালো টাকা আয় করতে পারেন। আজকের এই আর্টিকেলটিতে আমি আপনাদের সাথে 5 টি পদ্ধতি শেয়ার করব যার মাধ্যমে আপনারা ফেসবুক থেকে টাকা আয় করতে পারবেন।

তাহলে চলুন প্রথমে জেনে নেওয়া যাক কোন সেই পাঁচটি পদ্ধতি। যদি আপনার মনে এই প্রশ্নটা আছেন যে, ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় তাহলে অবশ্যই আর্টিকেলটা পুরোটা পড়ুন আপনি আপনার প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। এবং শুধু উত্তর নয় আপনি বেশ ভালো টাকাও আয় করতে পারবেন।

ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়

আপনি যদি একটু মাথা খাটান তাহলে অবশ্যই নতুন কিছু আইডিয়া পাবেনই ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার। এখানে আমি পাঁচটি পদ্ধতির কথা বলব। আপনি এর মধ্যে থেকে যে কোন পদ্ধতি অবলম্বন করে ভালো টাকা আয় করতে পারবেন। ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার 5 টি পদ্ধতি হলো-

  • ফেসবুক পেজ থেকে টাকা আয়
  • ফেসবুক গ্রুপ থেকে টাকা আয়
  • ফেসবুক মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা আয়
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা আয়
  • লিংক সর্টনার এর মাধ্যমে টাকা আয়

ফেসবুক পেজ থেকে টাকা আয়

ফেসবুক পেজ থেকে টাকা আয়

আপনার যদি একটি অ্যাক্টিভ ফেসবুক পেজ থাকে তাহলে আপনি অনেক পদ্ধতির মাধ্যমে অপর সেই ফেসবুক পেজ থেকে টাকা আয় করতে পারেন। যদি আপনার ফেসবুক পেজ না থাকে তাহলে তাড়াতাড়ি বানিয়ে নিয়ে সেটিকে অনেক শেয়ার করে সাবস্ক্রাইবার বাড়িয়ে নিয়ে তা থেকে আয় করা শুরু করে দিন।

আরও পড়ুন:  রেফার (Refer) করে টাকা আয় করার সবচেয়ে সেরা অ্যাপ কোনটি?

ইউটিউব এর মতো এখন ফেসবুক পেজ ও মনিটাইজ করা সম্ভব। তবে তার জন্য কিছু কিছু ক্রাইটেরিয়া মেইনটেইন করতে হবে তবেই আপনি আপনার ফেসবুক পেজ মনিটাইজ করে তার থেকে খুবই ভালো টাকা আয় করতে পারেন। আপনি যদি মনিটাইজ কথাটির সাথে পরিচিত না হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে বলে রাখি আপনি যখন কোনো ইউটিউব ভিডিও দেখেন তাহলে একটা জিনিস অবসসই লক্ষ্য করে থাকবেন যে ভিডিও তে বিভিন্ন রকম বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। এটাই হলো মনিটাইজ। এই বিজ্ঞাপন দেখানোর জন্য গুগল ওই চ্যানেল এর মালিক কে টাকা দেবে। আর এখন ফেসবুক পেজ থেকেও আপনি এভাবেই টাকা আয় করতে পারেন।

মনিটাইজ ছাড়াও আপনার পেজ এ যদি ভালো পরিমান একটিভ ফলোয়ার থাকে তাহলে আপনি অন্য কোনো ফেসবুক পেজ বা গ্রুপ অথবা কোনো প্রোডাক্ট এর প্রমোশন করে তার থেকে টাকা আয় করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে একটু পরিশ্রম করে আপনার ফেসবুক পেজ এ একটিভ মেম্বার বাড়াতে হবে। এরপর আপনাকে কিছু নতুন বা পুরানো ফেসবুক পেজ বা গ্রুপ খুঁজে বের করতে হবে প্রমোশন এর জন্য। এর জন্য আপনি অন্য গ্রুপ এর সাহায্য ও নিতে পারেন। সেখানে আপনি পোস্ট করলেন কেউ যদি প্রমোশন করতে চান তো আপনার সাথে যোগাযোগ করে নিতে পারেন।

ফেসবুক গ্রুপ থেকে টাকা আয়

ফেসবুক Group থেকে টাকা আয়

ফেসবুক পেজ এর মতো ফেসবুক গ্রুপ থেকেও আপনি পেইড প্রমোশন এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে পারেন খুব সহজেই। এই প্রমোশন এর মাধ্যমে টাকা আয় করাটা একটি খুবই সহজ এবং কোনোরকম পরিশ্রম ছাড়াই ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার পদ্ধতি। এই পদ্ধতি থেকে আপনি যত খুশি আয় করতে পারেন। শুধু আপনার গ্রুপ এ একটিভ মেম্বার বেশি থাকতে হবে। যত বেশি মেম্বার আপনি প্রমোশন এর জন্য ততো বেশি টাকা দাবি করতে পারেন।

এখন থেকে আপনি কেবলমাত্র ফেসবুক গ্রুপ বা ফেসবুক পেজ এর প্রমোশন নয়, আপনি চাইলে কোনো ওয়েবসাইট, ইউটিউব চ্যানেল, ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ার এর জন্য, অথবা কোনো প্রোডাক্ট এর প্রমোশন ও করতে পারেন আপনার গ্রুপ এ। আপনি কি জানেন ঠিক এই পদ্ধতি এর মাধ্যমে অনেকেই খুব সহজে মাসে ৩০ থেকে ৫০ হাজার টাকাও আয় করছে।

আপনার নিজস্ব যদি কোনো প্রোডাক্ট থাকে তাহলে আপনি সেটিও আপনার এই গ্রুপ এ বিক্রি করতে পারেন। এটি আরো একটি খুব ভালো এবং সহজ পদ্ধতি আপনার প্রোডাক্ট এর নাম ছড়ানোর জন্য এবং বেচার জন্য। এতে করে আপনার একটি ব্র্যান্ড তৈরী হবে আর তা চারিদিকে ছড়িয়ে যাবে শুধুমাত্র এই গ্রুপ এ প্রমোশন এর মাধ্যমে।

আপনার যদি কোনো ফেসবুক গ্রুপ না থেকে থাকে, আপনি তাহলে আজই একটি ফেসবুক গ্রুপ খুলে তাতে মেম্বার বাড়ানোর কাজে লেগে যান। তবে একটা কথা মাথায় রাখবেন, তাড়াতাড়ি মেম্বার বাড়ানোর চক্করে গ্রুপ এ বা পেজ এ কোনো অসৎ বা অবৈধ তথ্য প্রদান করবেননা। আপনি রেফার করেও ফেসবুক গ্রুপ থেকে টাকা আয় করতে পারেন। আপনি যদি রেফার করে টাকা আয় করার অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন তাহলে তার লিংক এই গ্রুপ এ বা পেজ এ শেয়ার করে খুব ভালো টাকা আয় করতে পারেন।

আরও পড়ুন:  Rozbuzz WeMedia থেকে ঘরে বসে টাকা আয় করা যায় কিভাবে?

ফেসবুক মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা আয়

ফেসবুক মার্কেটপ্লেস থেকে টাকা আয়

আপনি কি ফেসবুক মার্কেটপ্লেস (Marketplace) এর বেপারে জানেন? অবশ্যই জানবেন। আপনি দেখে থাকবেন ফেসবুক হোম পেজ এ অনেকসময় বিভিন্ন প্রোডাক্ট দেখায়, মোবাইল,হেডফোন আরো নানান জিনিস। এটা আসে ওই ফেসবুক মার্কেটপ্লেস থেকে। আপনি যদি না জেনে থাকেন যে মার্কেটপ্লেস অপসন কোথায় থাকে, সেক্ষেত্রে বলে রাখি আপনি ফেসবুক হোম পেজ এ একদম উপরে ডানদিকে যে থ্রি ডট অপসন থাকে ওখানে ক্লিক করলেই যে মেনু আসে ওখানেই আপনি মার্কেটপ্লেস অপশনটি পাবেন।

এখান থেকে টাকা আয় করার জন্য আপনাকে অবশ্যই কিছু প্রোডাক্ট সেল করতে হবে। তা সে আপনার নিজস্ব বিসনেস প্রোডাক্ট হোক বা অন্য কোনো প্রোডাক্ট। Quikr, OLX  এর মতো এখানেও আপনাকে পোডাক্ট সেলিং এর জন্য বিজ্ঞাপন দিতে হবে। এরপর যদি কেউ ওই প্রোডাক্ট কিনতে চায় তো আপনাকে ম্যাসেজ করবে। এবার আপনি তার সাথে কথা বলে তাকে ওই প্রোডাক্ট সেল করে দেবেন। আর এভাবেও এখন অনেকে প্রচুর টাকা ইনকাম করছে। আপনি অবশ্যই এই পদ্ধতিটা কাজে লাগাতে পারেন।

এবার আপনি কাস্টমার এর সাথে যত ভালো ভাবে কথা বলে প্রোডাক্ট সেল করতে পারবেন আপনার ততো লাভ হবে। তবে আপনার প্রোডাক্ট কোয়ালিটি ও অবশ্যই ভালো হতে হবে যাতে কোনো কাস্টমার একবার কেনার পর সেটি অন্যজনকে কেনার জন্য রেফার করে অথবা পরে এবার আপনার থেকে কেনে।

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে টাকা আয়

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে ফেসবুক থেকে টাকা আয়

অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর বেপারে যদি আপনি পরিচিত না হয়ে থাকেন তো আপনাকে প্রথমে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে একটু আইডিয়া দিয়ে দি। আপনি আমাজন, ফ্লিপকার্ট থেকে প্রোডাক্ট তো কিনেছেনই এখন আপনাকে কি করতে হবে আমাজন, ফ্লিপকার্ট এর মতো আরো অনেক প্লাটফর্ম আছে যারা তাদের প্রোডাক্ট সেল করার জন্য কিছু কমিশন দেয়। মোটকথা আপনাকে প্রোডাক্ট এর বিজ্ঞাপন দিতে হবে আর আপনার শেয়ার করা লিংক থেকে যদি কেউ সেই প্রোডাক্ট কেনে তাহলে আপনি টা থেকে কমিশন পাবেন। এটাই হলো অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং।

আপনি হয়তো ভাবছেন বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য তো খরচ হবে। আমি ফ্রি এর কথাই বলবো এখানে। এর জন্য আপনার একটি অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট থাকতে হবে আর ফেসবুকে একটি নরমাল একাউন্ট অথবা গ্রুপ বা পেজ থাকতে হবে। এবার আপনাকে কি করতে হবে প্রোডাক্ট এর অ্যাফিলিয়েট লিংক নিয়ে এবং প্রোডাক্ট এর ছবি নিয়ে আপনার ফেসবুক একাউন্ট, গ্রুপ বা পেজ এ শেয়ার করুন। আপনার পরিচিতরা বা গ্রুপ বা পেজ মেম্বাররা কেউ যদি সেই প্রোডাক্ট কিনতে চায় তো আপনার ওই লিংক দিয়ে ডাইরেক্ট সাইট থেকে কিনবে আর আপনি তার জন্য কমিশন আপনার অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট এ পেয়ে যাবেন।

আরও পড়ুন:  লুডু গেম খেলে টাকা ইনকাম কিভাবে করা যায়? গেম খেলে টাকা ইনকাম

আরো একটি ভালো এবং সুন্দর উপায় হলো ফেসবুক মার্কেটপ্লেস। সেখানে ওই প্রোডাক্ট এর ছবি ডিটেলস এর সাথে আপলোড করে দিন। ওখান থেকে আপনি অনেক কাস্টমার পেয়ে যাবেন। আপনাকে ম্যাসেজ করলে আপনি অ্যাফিলিয়েট লিংক শেয়ার করে দেবেন। আর কিনে নিলেই আপনি কমিশন পেয়ে যাবেন।

লিংক সর্টনার এর মাধ্যমে টাকা আয়

লিংক সর্টনার এর মাধ্যমে ফেসবুক থেকে টাকা আয়

লিংক সর্টনার সাইট হলো এমন একটি সাইট যেখানে আপনি যেকোনো লিংক কে সর্ট করে বা ছোট করতে পারেন। আর সেই লিংক যদি আপনি শেয়ার করে তো কেউ যদি সেই লিংক থেকে মেইন লিংক এ গিয়ে পৌঁছায় তো আপনি টাকা পাবেন। ওই লিংক সর্টনার সাইট আপনাকে টাকা দেবে। এবার আপনি ভাবছেন যে ওরা কেন আপনাকে টাকা দেবে। ওই যে লিংক সর্টনার সাইট আছে ওখানে লিংক সর্ট করলে সেই লিংক এ যখন কেউ যাবে তো কিছু ধাপে ধাপে আপনাকে ওই মেইন লিংক এ পৌঁছাতে হবে। আর মাঝখানে যে ধাপগুলো পার হবে সেখানে যে এডভার্টাইসমেন্ট এর মাধ্যমে ওই সাইট কিছু টাকা আয় করবে তার থেকে কিছুটা আপনাকে দেবে।

ZA.GL হলো একটি খুবই ভালো লিংক সর্টনার সাইট। এই সাইটে প্রচুর লোক টাকা আয় করে। সাধারণত কোনো সিনেমার বা MOD Apk এর লিংক শেয়ার এর মাধ্যমে লোক টাকা আয় করে। এখন আপনিও এই লিংক সর্টনার এর মাধ্যমে কোনো লিংক সর্ট করে তার থেকে টাকা আয় করতে পারেন। সর্ট করা লিংক ফেসবুক এ শেয়ার করতে হবে আপনাকে। এবার যত বেশি লোক আপনার লিংক এ যাবে ততো বেশি টাকা আপনি আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি ওই লিংক সর্টনার সাইট এ জয়েন করার জন্য কাউকে রেফার লিংক শেয়ার করতে পারেন। এর ফলে যদি কেউ আপনার শেয়ার করা লিংক থেকে ওই সাইট এ জয়েন করে তাহলে সারাজীবন সে ওই লিংক সর্টনার সাইট থেকে যত টাকা আয় করবে আপনি তার থেকে কমিশন পাবেন। এভাবে আপনি রেফার করে টাকা আয় করতে পারেন।

জরুরি তথ্য

আপনি যদি আর্টিকেল টা পরে যে ৫ টি পদ্ধতির কথা বলা হয়েছে তার যধ্যে যেকোনো পদ্ধতি অবলম্বন করেন, অবশ্যই আপনি ভালো পরিমান টাকা ফেসবুক থেকে আয় করতে পারবেন। আশা করি ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় প্রশ্নর উত্তর আপনি পেয়ে গেছেন। উপরে যে ৫ টি পদ্ধতির কথা বললাম এ ছাড়াও আরো অনেক পদ্ধতি আছে যা দিয়ে আপনি ফেসবুক থেকে টাকা আয় করতে পারেন।

এবার আপনি কমেন্ট করে বলুন উপরের ৫ টি পদ্ধতির মধ্যে থেকে কোন পদ্ধতিটি আপনার পছন্দ হলো। এবং আপনি যদি কোনো অন্য পদ্ধতি জানেন তাহলে অবশ্যই জানান। আর্টিকেল টি শেয়ার করে সাহায্য করবেন যারা ফেসবুক থেকে টাকা আয় করতে চান তাদের। ধন্যবাদ।।

Leave a Comment