পেটিএম (PayTm) থেকে কীভাবে মোবাইল ফোন রিচার্জ করা যায়?

পেটিএম (PayTm) থেকে মোবাইল রিচার্জ: পেটিএম (PayTm) ভারতবর্ষের একটি খুবই জনপ্রিয় পেমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন। পেটিএম প্রতিষ্ঠিত হয় 2009 সালে। 2009 সাল থেকে পেটিএম খুবই ভালো পেমেন্ট সার্ভিস দিয়ে আসছে। দিনের-পর-দিন এটি আরও উন্নত হচ্ছে। নতুন নতুন ফিচার অ্যাড হচ্ছে। আরো অনেক সুযোগ সুবিধা দেওয়ার চেষ্টা চলছে।

PayTm অ্যাপ এর মাধ্যমে আপনি অনেক কিছুরই পেমেন্ট করতে পারবেন। আপনি অনলাইন মোবাইল রিচার্জচার্জ করতে পারবেন, কারো ব্যাংক একাউন্টে যদি টাকা পাঠাতে চান সেটিও করতে পারবেন, ইলেকট্রিক বিল পাঠাতে চাইলে সেটিও করতে পারবেন, ট্রেনের টিকিট, বাসের টিকিট চাইলেও বুকিং করতে পারবেন। এছাড়াও আরো অনেক সুযোগ সুবিধা রয়েছে এই পেটিএম অ্যাপ এ।

এই অ্যাপ এর ভালো একটি দিক হলো আপনি যখন পেটিএম এর মাধ্যমে রিচার্জ করছেন অথবা বিল পেমেন্ট করছেন অথবা টাকা পাঠাচ্ছেন, আপনি কিছু রিওয়ার্ড পেতে পারেন। এই রিওয়ার্ডটি টাকা হতে পারে অথবা কোন কুপন ও হতে পারে। এই কারণের জন্যই পেটিএম এতটা বিখ্যাত।

পেটিএম (PayTm) এর মাধ্যমে রিচার্জের সুবিধা কি?

আগে মোবাইলে রিচার্জ এর পদ্ধতি আলাদা ছিল। আপনাকে রিচার্জ করার জন্য দোকানে যেতে হবে সেখানে আপনি আপনার রিচার্জের প্যাক অনুযায়ী রিচার্জ স্ক্যাচ কার্ড অথবা দোকানদার তার লাপু সিম এর মাধ্যমে আপনার ফোনটি রিচার্জ করে দিত।

এখন রিচার্জের পদ্ধতি কিছুটা বদলে গেছে, রিচার্জের প্যাক ও বদলে গেছে। এখন আর রিচার্জ করার জন্য টকটাইম কার্ড পাওয়া যায় না। এখন আপনি বাড়িতে থেকেই আপনার নিজের অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে আপনার মোবাইলটি অথবা অন্য কারো মোবাইল রিচার্জ করে দিতে পারেন খুব সহজেই।

পেটিএম আপনাকে সেই সুযোগ করে দিয়েছে। আপনি পেটিএম এর মাধ্যমে আপনার ফোনটি খুব সহজেই রিচার্জ করতে পারেন। আর আপনার ফোনটি রিচার্জ করার সাথে সাথে আপনি পেটিএম এর তরফ থেকে কিছু উপহার ও পেতে পারেন। আপনি যখন পেটিএম এর মাধ্যমে আপনার ফোন অথবা অন্য কারো ফোনে রিচার্জ করবেন, রিচার্জ সম্পূর্ন হওয়ার পরে আপনি পেটিএম এর তরফ থেকে একটি অথবা তার বেশি স্ক্যাচ কার্ড পেতে পারেন।

আরও পড়ুন:  IRCTC অ্যাকাউন্ট কীভাবে বানাতে হয়? IRCTC ID বানানোর নিয়ম

আপনি এই স্ক্যাচ কার্ডটি থেকে কিছু ক্যাশব্যাক অথবা কোন কুপন বা গিফট ভাউচার পেতে পারেন। এছাড়া সবথেকে ভালো একটি সুবিধা হল আপনাকে আপনার ফোন রিচার্জ করার জন্য বাইরে কোথাও যেতে হচ্ছে না। আপনি বাড়িতে থেকেই নিজের ফোনটি পেটিএম এর মাধ্যমে রিচার্জ করে নিতে পারবেন খুব সহজে। আপনাকে শুধুমাত্র কিছু ধাপ অনুসরণ করতে হবে। আর সেটি আপনি এই আর্টিকেলটির নিচের দিকে পেটিএম (PayTm) থেকে কিভাবে রিচার্জ করা যায় সেকশনে পেয়ে যাবেন।

পেটিএম এর মাধ্যমে আপনার ফোনটি রিচার্জ করতে গেলে কি কি জিনিস প্রয়োজন?

বাড়ি থেকে নিজের অথবা অন্য কারো ফোন পেটিএম এর মাধ্যমে রিচার্জ করতে গেলে আপনার কাছে যে সকল জিনিস থাকা প্রয়োজন, সেগুলি হলো, প্রথমত আপনার কাছে একটি স্মার্টফোন বা এন্ড্রয়েড ফোন থাকা দরকার। সেই ফোনে আপনাকে পেটিএম অ্যাপ্লিকেশনটি ইন্সটল করতে হবে।

এরপর পেটিএম অ্যাপ্লিকেশনে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। যদি পেটিএম অ্যাপ্লিকেশনে আপনার রেজিস্ট্রেশন না থাকে, তাহলে আপনি পেটিএম অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে পারবেন না। আপনি পেটিএম এর মাধ্যমে রিচার্জ অথবা কোন পেমেন্ট করতে পারবেন না।

আপনার পেটিএম অ্যাকাউন্টে যে কোন ব্যাংক অথবা পেটিএম পেমেন্ট ব্যাংক এর সংযোগ করে রাখতে হবে। কারণ রিচার্জ অথবা অন্য কোনো লেনদেনের জন্য সেই অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা লেনদেন হবে। আপনি চাইলে শুধুমাত্র পেটিএম ওয়ালেট ব্যবহার করতে পারেন। সেক্ষেত্রে আপনাকে ওয়ালেটে কিছু টাকা রাখতে হবে রিচার্জ করার জন্য।

আগে পেটিএম এ শুধুমাত্র ওয়ালেট এর সুবিধা ছিল। এখন পেটিএম পেমেন্ট ব্যাংক পেমেন্টের সকল সুবিধা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। আর সাধারণ ব্যাংক এর মত পেটিএম পেমেন্ট ব্যাংক এর মাধ্যমেও আপনি সাধারণ লেনদেন করতে পারবেন খুব সহজেই। এবং আপনি আপনার পুরো ব্যাংক একাউন্টটি আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোন থেকে দেখাশোনা করতে পারবেন। এবং এটির আরো একটি সবথেকে ভালো দিক হল আর সাধারন ব্যাংকের মতো আপনি পেটিএম পেমেন্ট ব্যাংকে ও টাকা রাখার জন্য সুদ পাবেন।

আরও পড়ুন:  কীভাবে হোয়াটসঅ্যাপে ভাষা পরিবর্তন করা যায়? স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি

পেটিএম (PayTm) থেকে কীভাবে মোবাইল ফোন রিচার্জ করা যায়?

অনেকেই মনে করেন যে অনলাইন লেনদেন অথবা রিচার্জ করার জন্য কিছু বেশি টাকা কম্পানী অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নেয়। এই ধারণা সম্পূর্ণ ভুল। আপাতত পেটিএম রিচার্জ করার জন্য কোন অতিরিক্ত টাকা কাটে না। শুধুমাত্র আপনার যে রিচার্জ প্যাকের দাম সেটি আপনার একাউন্ট থেকে কাটবে। তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক পেটিএম (PayTm) থেকে কীভাবে মোবাইল ফোন রিচার্জ করা যায়, (পেটিএম (PayTm) থেকে অনলাইন মোবাইল রিচার্জ) পুরো পদ্ধতিটি কি?

  • আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে পেটিএম (PayTm) অ্যাপ্লিকেশনটি ওপেন করুন।
  • যদি সেখানে লগ-ইন না করা থাকে তাহলে লগ-ইন করে নিন।
  • এরপর আপনাকে দেখতে হবে রিচার্জ করার জন্য আপনার পেটিএম ওয়ালেট এ পর্যাপ্ত টাকা আছে কিনা। যদি না থাকে তাহলে জমা করে নিন।
  • এরপর ছবিতে দেখানো জায়গার মতো আপনিও আপনার পেটিএম অ্যাপ্লিকেশনে Recharge & Pay Bills অপশনটি দেখতে পাবেন। ওই অপশনটিতে ক্লিক করুন।
  • ওখানে ক্লিক করার পর আপনি যে মোবাইল নাম্বারটিতে রিচার্জ করতে চান সেই নম্বরটি দেওয়ার জন্য অপশন চলে আসবে। সেখানেই আপনি নম্বরটি দিয়ে দিন।
  • যে ঘরটিতে আপনি নম্বরটি দেবেন তার ঠিক উপরে আপনি দুটো অপশন দেখতে পাবেন Prepaid এবং Postpaid
  • এবার যদি আপনি প্রিপেইড মোবাইল রিচার্জ করতে চান তাহলে প্রিপেইড অপশনটি সিলেক্ট করে রাখুন এবং পোষ্টপেইড মোবাইলে রিচার্জ করতে চাইলে পোস্টপেইড অপশনটি সিলেক্ট করুন।
  • এরপর একদম নিচের দিকে আপনি Proceed অপশনটি পাবেন। ওখানে ক্লিক করুন।
  • এরপর আপনি কত টাকা রিচার্জ করতে চান সেই টাকার অংকটি বসান। অথবা পাশে থাকা Browse Plans অপশন এ ক্লিক করে আপনার মোবাইলের রিচার্জ প্ল্যান সিলেক্ট করে নিতে পারেন।
  • উপরে একবার অবশ্যই দেখে নেবেন যে সঠিক অপারেটরটি সিলেক্ট আছে কিনা। যদি না থাকে তাহলে, Change Operator অপশন এ ক্লিক করে সঠিক অপারেটরটি সিলেক্ট করে নিন।
  • এরপর একেবারে নিচে Fast Forward এর ঘরটিতে টিক করে Proceed to Recharge অপশনে ক্লিক করুন।
  • এবার আপনি পেমেন্ট কিসে থেকে করতে চান সেটি সিলেক্ট করুন। যদি আপনি পেটিএম এ আপনার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সংযোগ করে থাকেন, তাহলে আপনি পেটিএম ওয়ালেট এবং তার সাথে আপনার যে ব্যাংকটি সংযোগ করা আছে সেটি দেখতে পাবেন। সেখান থেকে অপশন সিলেক্ট করুন।
  • এরপর Pay অপশন সিলেক্ট করে আপনার পেটিএম পাসওয়ার্ডটি দিয়ে দিলেই আপনার রিচার্জ সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে রিচার্জের টাকা কেটে নেওয়া হবে। কোন অতিরিক্ত টাকা কাটা হয় না।
আরও পড়ুন:  কিভাবে ফেসবুক একাউন্ট ভেরিফাই করা যায়?

শেষ কথা

আপনি যদি বাড়িতে থেকে নিজের মোবাইল রিচার্জ করতে চান তাহলে পেটিএম খুবই ভালো একটি অপশন। সবথেকে ভালো দিক হল এটি ব্যবহার করা খুবই সহজ, এবং পেটিএম অনেকটাই পুরানো এবং বিশ্বস্ত।

তবে রিচার্জ অথবা অন্য কোন লেনদেন করার আগে অবশ্যই সবকিছু তথ্য যাচাই করে তবেই লেনদেন সম্পন্ন করবেন। এটি আপনি শুধু পেটিএম না অন্যান্য যেসকল পেমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে সেগুলোর সাথে ও করবেন। এতে টাকা চোখ যাওয়ার সম্ভাবনা থাকেনা।

আশা করছি পেটিএম সম্পর্কে এই তথ্যটি আপনাদের অনেক সাহায্য করবে। আজকাল পেটিএম থেকে অনেকেই নিজের মোবাইল রিচার্জ করেন। কিন্তু এখনো অনেকে আছেন যারা নতুন অ্যান্ড্রয়েড ফোন ব্যবহার করছেন এবং পেটিএম (PayTm) থেকে কীভাবে মোবাইল ফোন রিচার্জ করা যায় তা জানেন না এই পদ্ধতিটি তাদেরকে অনেক সাহায্য করবে। অবশ্যই এই পদ্ধতিটি শেয়ার করবেন এবং কমেন্ট করে জানান যে আপনি নিজের মোবাইল থেকে অনলাইনে প্রথম কত টাকা রিচার্জ করেছিলেন। এইরকম আরও ছোট অথচ সুন্দর তথ্য পাওয়ার জন্য AnswerChamp সাইট ফলো করুন। ধন্যবাদ।।

Leave a Comment